নিজস্ব প্রতিবেদক:
৯ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আবারো ৪৮ ঘন্টা পণ্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ। চট্টগ্রামসহ সারাদেশে এই ধর্মঘট চলবে সোম ও মঙ্গলবার।

শনিবার রাতে চট্টগ্রাম মহানগরীর কর্ণফুলী শাহ আমানত সেতু সংলগ্ন রাজবাড়ী কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত সমন্বয় সভা থেকে এই ধর্মঘটের ডাক দেয় পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সমন্বিত পরিষদ।

পরিবহন নেতারা বলেন, পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের স্বার্থের কথা বিবেচনা না করে সরকার সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ বাস্তবায়ন করা হয়েছে। ফলে সারাদেশে পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য চলছে। এ আইনের কারণে পরিবহন মালিক-শ্রমিকেরা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে এ আইন সংশোধনসহ পরিবহনে নৈরাজ্য ঠেকাতে সংগঠনের পক্ষ থেকে আগামি ১২ ও ১৩ অক্টোবর সারাদেশে ৪৮ ঘন্টার ধর্মঘট পালন করা হবে।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ স¤পাদক ওসমান আলী বলেন, সড়ক পরিবহন আইন শুধু পণ্য পরিবহনের জন্য নয়। এ আইন সকল পরিবহনের জন্য সমান। শ্রমিকরা ট্রাক-কাভার্ডভ্যান, প্রাইমমুভার, মিনিট্রাক ও লরী না চালালে চট্টগ্রাম বন্দরসহ দেশের বিভিন্ন বন্দর ও স্থান দিয়ে আমদানী-রপ্তানীকরা সকল ধরণের গার্মেন্টস, খাদ্য ও বিভিন্ন পণ্য পরিবহন বন্ধ হয়ে যাবে।

এতে সরকার বেকায়দায় পড়বে। কিন্তু সরকারকে বেকায়দায় ফেলা সংগঠনের উদ্দেশ্য নয়। তবে ন্যায্য দাবি আদায় না হলে শুধু পণ্য পরিবহন নয়, সকল পরিবহন মালিক-শ্রমিক সংগঠনকে সাথে নিয়ে আন্দোলন আরো বেগবান করা হবে।

বৃহত্তর চট্টগ্রাম পণ্য পরিবহন মালিক ফেডারেশনের যুগ্ম মহাসচিব জসিম উদ্দিন ভুঁইয়া বলেন, ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকায় পরিচালিত অভিযানে ‘ধ্বংস’ করা গাড়ির ক্ষতিপূরণ আদায়, সড়ক পরিবহন আইন সংশোধন, ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রাপ্তিতে দালাল নির্মূল, যানবাহনে বর্ধিত আয়কর প্রতাহার, মহাসড়কে পুলিশ কর্তৃক হয়রানি বন্ধ ও সন্ত্রাস নির্মূলসহ ৯ দফা দাবি আদায় না হলে ডিসেম্বরে আরও জোরালো কর্মসূচি দেওয়া হবে। আজকের সমন্বয় সভায় এ লক্ষ্যে দিক নির্দেশনা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির আহবায়ক হাজী মো. আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে ও সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির সহ-সাধারণ স¤পাদক মো. আবদুর রহিমের সঞ্চালনায় এই সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদের আহবায়ক হাজী রুস্তম আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব মো. তাজুল ইসলাম। এছাড়া বৃহত্তর চট্টগ্রামের বিভিন্ন পরিবহন সংগঠনের মালিক ও শ্রমিকরা সভায় উপস্থিত ছিলেন।