নিজস্ব প্রতিবেদক:

দাবি পূরণ না হওয়ায় ফের আন্দোলন শুরু করেছে হাটহাজারীর দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সাড়ে এগারোটার দিকে মাদ্রাসার মাঠে পুনরায় অবস্থান নেন তারা। এসময় মাইকিং করে সাধারণ ছাত্রদেরকে আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত নিতে বলা হয়।

এরপর আন্দোলনকারীরা ক্ষিপ্ত হয়ে হেফাজত ইসলামের আমির আল্লামা আহমদ শফী, সহযোগী পরিচালক আল্লামা শেখ আহমদ, আল্লামা ওমর ফারুকের কার্যালয় ও মাদ্রাসার শিক্ষা ভবনে তারা ভাঙচুর চালায়। খবর পেয়ে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ, র‌্যাব, দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছালেও মাদ্রাসার সব গেইট বন্ধ থাকায় ভেতরে প্রবেশ করতে পারেনি।

প্রশাসন যাতে মাদরাসার ভিতরে ঢুকে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ না করেন এজন্য আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা মসজিদের মাইকে বারবার মাইকিং করছিলেন। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বাইরে সতর্কবস্থায় অবস্থান করছেন।

এর আগে বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) মাওলানা আনাস মাদানীর পদত্যাগসহ বিভিন্ন দাবিতে দুপুর থেকে হাটহাজারী মাদ্রাসায় বিক্ষোভ করেন ছাত্ররা। পরে আন্দোলনের মুখে এক জরুরী সভায় আনাস মাদানীকে মাদ্রাসা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। বাকী দাবি পুরণে শনিবার মাদ্রাসার শুরা মজলিসের বৈঠকের কথা জানানো হয়।