মো. কমরুদ্দিন, চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) :
চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ভিক্ষুক পুনর্বাসন এবং বিকল্প কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে উপকরণ সামগ্রী হস্তান্তর অনুষ্ঠান অনুষ্টিত হয়। বৃহ¯পতিবার সকাল ১১ টায় উপজেলা অডিটোরিয়ামে নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ ইমতিয়াজ হোসেন এতে সভাপতিত্ব করেন।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চন্দনাইশ উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল জব্বার চৌধুরী। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ভিক্ষাবৃত্তি মানবতার চরম অবমাননা ও অমর্যদাকর একটি পেশা। স্বাধীন ও স্বার্বভৌম দেশে ঘৃণিত এই পেশাকে মানুষ গ্রহন করুক এটা কার ও কাম্য নয়। এ পেশা পরিবার সমাজ তথা দেশের সম্মান ক্ষুন্ন করে।

তিনি বলেন, দারিদ্রের কষাঘাতে পিষ্ট হয়ে বেঁচে থাকার তাগিদে অথবা শারীরিক অক্ষমতায় অনেকে ভিক্ষা করতে বাধ্য হয়। অর্থ-উপার্জনের সহজ পথ হিসেবে ভিক্ষাবৃত্তিকে অনেকে পেশা ও ব্যবসা হিসেবে বেছে নেয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মধ্যম আয়ের ও উন্নত বাংলাদেশ গঠনের যে কর্ম উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন, তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণহলো কোন মানুষ না খেয়ে থাকবে না। এ উদ্দেশ্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে চন্দনাইশ উপজেলায় গ্রহণ করা হয়েছে ভিক্ষুক মুক্তকরণ, ভিক্ষুকদের কর্মসংস্থান ও পুনর্বাসন কর্মসূচি। চন্দনাইশের বিভিন্ন স্থানের ৩০ জন ভিক্ষুককে ৫টি ভ্যান গাড়ি সহ সেলাইমেশিন বিতরণ করা হয়।

এ কর্মসূচিতে উপজেলা পরিষদের কর্মকর্তা, বাংলাদেশ সাংবাদিক ঐক্য ফোরামের নেতৃবৃন্দ ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।