নিজস্ব প্রতিবেদক:
চট্টগ্রামে কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষার সাথে ক্রমেই কমছে শনাক্ত। কমছে মৃত্যুর সংখ্যাও। বাড়ছে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা। যাকে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি বলছেন চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামে ৩৮৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে মাত্র ৭০ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। মারা গেছেন একজন। সুস্থ হয়েছেন ৬৭ জন। এ নিয়ে সুস্থ হয়েছেন ১৯০০ জন। মৃত্যুর সংখ্যা দাড়িয়েছে ২২৮ জনে। আক্রান্ত দাড়িয়েছে ১৩,৬৯৯ জনে।

তিনি বলেন, জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে চট্টগ্রামে কোভিড-১৯ শনাক্তের হার ক্রমেই কমে আসছে। শনিবার রাতে সর্বশেষ প্রকাশিত ফলাফলে শনাক্তের হার ১৮ শতাংশে দাড়িয়েছে। জুলাই মাসের আগে এ হার ছিল প্রায় ৩৩ শতাংশ। সেই সাথে মৃত্যুর হারও এখন শূণ্যের কোটায়। বাড়ছে সুস্থ হওয়ার হারও।

সিভিল সার্জনের তথ্যমতে, চট্টগ্রামের বিআইটিআইডি হাসপাতাল ল্যাবে শনিবার দিনগত রাতে ১৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করে। এতে নগরের ৯ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ৪ জন বাসিন্দা রয়েছে। একইভাবে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ৯৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের ১৭ জন ও উপজেলার ১ জন বাসিন্দা রয়েছে।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারী বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৪৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের ৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৩৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় নগরের ১৩ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। বেসরকারী শেভরণ ল্যাবে ৫১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২০ জন নগরের ও ২ জন উপজেলার বাসিন্দা রয়েছে।

উপজেলা পর্যায়ে নতুন শনাক্তদের মধ্যে হাটহাজারী ২, সাতকানিয়া ১, পটিয়া ১, বোয়ালখালী ১, সীতাকুন্ড ১ ও মিরসরাই ১ জন। এর আগে শুক্রবার ৭৪৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১২৬ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন। এর আগে বৃহস্পতিবার ৮৪২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৫৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এর আগে বুধবার ১০৭৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৪৮ জন করোনা শনাক্ত হন।। মঙ্গলবার ৮০৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৩৩ জন, সোমবার ১,১১৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৩৮ জন করোনা শনাক্ত হন।

তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে ক্রমেই কমেছে নমুনা পরীক্ষা। সেই হিসেবে কমেছে শনাক্তের হারও। যা নিয়ে সচেতন মহলে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। তবে সবকিছু উপেক্ষা করে সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি শনাক্ত ও মৃত্যুর হার কম এবং সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বাড়ার হিসেবকে পরিস্থিতির উন্নতি হিসেবে দেখছেন।