শুভ চট্টগ্রাম ডেস্ক : মিয়ানমারে পান্না খনি ধসে পড়ার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৫০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় এই পান্না খনিতে ধসের ঘটনা ঘটেছে।

বেশ কিছু প্রতিবেদনে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে যে, কাচিন রাজ্যের হাকান্ত এলাকার ওই খনি ধসে পড়ার ঘটনায় হয়তো আরও অনেকেই মাটি চাপা পড়েছেন। খবর বিবিসির।

দমকল বাহিনী জানিয়েছে, ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে ওই খনিটি ধসে পড়েছে। দমকল বাহিনীর সামাজিক মাধ্যমে এক পোস্টে জানানো হয়েছে, এখন পর্যন্ত ৫০টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

বিশ্বের বৃহত্তম পান্না খনি মিয়ানমারে অবস্থিত। দেশটিতে প্রতি বছরই বিভিন্ন খনি থেকে মূল্যবান এই রত্ন পাওয়া যায়।

তবে সাম্প্রতিক সময়ে দেশটিতে বেশ কয়েকবার খনি ধসের ঘটনা ঘটেছে। ফলে প্রাণ হারিয়েছে বহু মানুষ। এর আগে গত বছর একটি খনিতে দুর্ঘটনায় শতাধিক মানুষ প্রাণ হারায়।