নিজস্ব প্রতিবেদক : গ্যাস- বিদ্যুতের বকেয়া বিল এ মাসেই দিতে হবে, নইলে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, খনিজ ও জ্বালানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

বুধবার বিদ্যুৎ, খনিজ ও জ্বালানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে ‘বাজেট ও প্রাসঙ্গিক কথা’ নিয়ে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে গ্যাস-বিদ্যুৎ বিলের বিলম্ব মাশুল জুন পর্যন্ত মওকুফ করা হয়েছিল।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিলম্ব ফি মওকুফের বিষয়টি আর মোটেও বাড়বে না। এখন ধীরে ধীরে (আমরা) স্বাভাবিক হয়ে যাচ্ছি। এটা বাড়ালে আবার আমাদের অবস্থা খারাপ হয়ে যাবে। সুতরাং এ সময় সবার পার্টিসিপেট (অংশগ্রহণ) দরকার। ৩০ জুনের পরও কেউ যদি বিল দিতে না পারে তাহলে যে নিয়ম আছে সে নিয়মই প্রয়োগ হবে।

অতিরিক্ত বিলের বিষয়ে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিতরণ কোম্পনিগুলো এটা সমন্বয় না করলে আমার বরাবর আবেদন করলেই হবে। আমি সব কোম্পনিকেই এগুলো সমন্বয় করতে বলেছি। গ্রাহক যাতে সন্তুষ্ট হয় সেভাবেই ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

নসরুল হামিদ বলেন, নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সরবরাহে গুরুত্ব দিয়ে বাজেটে বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থায় গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচী ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে প্রস্তাবিত বাজেটে অর্থ মন্ত্রণালয়ে বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে ২৪৮০৩.৯৩ কোটি টাকা।