স্থানীয় প্রতিনিধি, আনোয়ারা:
চট্টগ্রামে আনোয়ারায় সেলিনা আকতার (২২) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে তার স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির সবাই পলাতক।

মঙ্গলবার বিকেল তিনটার দিকে ওই গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করা হয়। এ সময় সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান আনোয়ারা থানার ওসি (তদন্ত) এস এম দিদারুল ইসলাম সিকদার।

তিনি জানান, মৃত সেলিনা উপজেলার হাইলধর ইউনিয়নের খাসখামা গ্রামের মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী সাদ্দাম হোসেনের স্ত্রী ও নগরের পূর্ব মাদার বাড়ি পুরাতন কাস্টম এলাকার সোনা মিয়ার মেয়ে। সেলিনার তিন বছরের এক ছেলে সন্তান থাকলেও সে ঘরে নেই। স্বামীসহ শ্বশুড়বাড়ির সবাই পলাতক।

সেলিনার ভাই মামুনের অভিযোগ শ্বশুর বাড়ির লোকজন সেলিনাকে হত্যা করেছে। মামুন বলেন, প্রায় সাড়ে চার বছর আগে বিয়ে হয়েছে সেলিনার। শ্বশুর-শাশুরি ও পরিবারের লোকজন তুচ্ছ বিষয় নিয়ে সেলিনাকে প্রায় সময় অত্যাচার করতো। স্বামী বিদেশ থাকায় আমার বোন এসব মুখ বুঝে সহ্য করে আসছিল। বোনের জামাই দেশের বাইরে থেকে আসার পর বোনের জামাইসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে কলহ চলে আসছিল। এরই জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা।

আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি খাটের উপর দেখতে পায়। নিহতের দেহে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। মৃত্যুর কারণ ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে।