নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় পরিকল্পনা করতে সার্কভুক্ত দেশগুলোর রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর তার প্রস্তাবে রাজী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া মোদির এই প্রস্তাবে শ্রীলঙ্কা, নেপাল, মালদ্বীপ, ভুটান ও সাড়া দিয়েছে। সেই সঙ্গে ওই দেশগুলোর রাষ্ট্রপ্রধানরা মোদির এমন প্রস্তাবের প্রশংসাও করেছে। এর আগে সার্কভুক্ত দেশগুলোকে এক হওয়ার প্রস্তাব দেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

শুক্রবার টুইটারে দেয়া এক বার্তায় মোদি লিখেছেন, ‘করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য একটি শক্তিশালী কৌশল তৈরি করতে সার্কভুক্ত দেশগুলোর নেতৃত্বের কাছে আমি প্রস্তাব করছি।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী টুইটে আরো লিখেন, ‘আমরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আমাদের নাগরিকদের সুস্থ রাখার উপায় সম্পর্কে আলোচনা করতে পারি। একসঙ্গে আমরা বিশ্বের সামনে একটি উদাহরণ তৈরি করতে এবং একটি স্বাস্থ্যকর গ্রহ গড়ে তুলতে অবদান রাখতে পারি।’

প্রায় আড়াই মাস আগে গত বছরের শেষ দিন চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর বিশ্বব্যাপী তা ছড়িয়ে পড়ে। ইতোমধ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পাঁচ হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৩০ হাজার ছাড়িয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়া আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থা-সার্কের সদস্য আট দেশেই এ ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে। এর মধ্যে ভারতে সবচেয়ে বেশি ৭৪ জনের মধ্যে এ রোগ ধরা পড়েছে, সেখানে মৃত্যু হয়েছে একজনের। বৃহস্পতিবার রাতে কর্নাটকের কালবুর্গি জেলায় এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

পরিস্থিতির অবনতি এড়াতে ভারত অধিকাংশ ক্ষেত্রে বিদেশিদের ভিসা বন্ধ করে দিয়েছে, যা শুক্রবার রাত থেকেই কার্যকর হচ্ছে।