নিজস্ব প্রতিবেদক:
করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় নিয়োজিত চিকিৎসকদের নিরাপত্তা ও কর্মক্ষেত্রে তাদের সর্বোচ্চ সুরক্ষা না পাওয়া নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলেছেন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের (বিএমএ) চট্টগ্রামের সাধারণ স¤পাদক ডা. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী।

আর এ নিয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক স¤পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। ২২ এপ্রিল চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনুষ্ঠিত সভায় শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, আমাদের দলের অনেক পদধারী সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলছেন। ওই পেশাজীবী নেতা ওটা নাই, এটা নাই বলে বক্তব্য দিচ্ছেন। তিনি ডাক্তারদের মধ্যে ভয় ঢুকিয়ে দিচ্ছেন। এসময় তার বিরুদ্ধে দলীয়ভাবে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন নওফেল।

এর জবাবে নিজের ফেসবুক ওয়ালে স্ট্যটাস দেন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের করোনাবিষয়ক সমন্বয় সেলের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়কের দায়িত্ব থাকা বিএমএ নেতা ডা. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী। আর এতে সমবেদনা ও সাহস যুগিয়ে ১২১টি কমেন্টস করেছেন ফেসবুক ব্যবহারকারীরা। শেয়ার করেছেন ২৩২টি। কেউ কেউ পাশে থাকার কথাও লিখেছেন।

ডা. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী লিখেন, আমি বিএমএ নেতা হয়েছি চিকিৎসকদের স্বার্থের পক্ষে কথা বলার জন্য। বিএমএ আমাকে ভোটে নির্বাচিত করেছে। আর যোগ্য মনে করেছেন বলেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী পদ ও পদবী দিয়েছেন। পিতৃ পরিচয়ে নই।

এই স্ট্যাটাস দেওয়ার পর বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজের ফেসবুক ওয়ালে হঠাৎ এক স্ট্যাটাসে ডা. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী লেখেন-জীবন নিয়ে শঙ্কায় আছি। মাস্ক নিয়ে আর কোন অভিযোগ কিংবা প্রশ্ন নয়। বিশ্বাস হচ্ছে না? মাস্ক নিয়ে প্রশ্ন তোলায় তিনটি হাসপাতালের পরিচালকের বদলি নামে শাস্তি হলো!

১। স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক মাস্ক সংকট হেতু নিজ উদ্যোগে স্বাস্থ্যকর্মীদের মাস্ক কিনতে বলায় প্রেষণ বাতিল করে আর্মিতে ফিরিয়ে নেওয়া- সূত্র: বিডিনিউজ২৪
২। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক নিম্মমানের মাস্ক গ্রহণে অস্বীকৃতি জানানোর ফলে পাবনার হেমায়েতপুরের মানসিক হাসপাতালে তাৎক্ষণিক বদলি। সূত্র: ইত্তেফাক।
৩। নিন্মমানের মাস্ক সরবরাহ করায় এর বিরুদ্ধে প্রশ্ন তোলায় মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালককে ওএসডি। সূত্র: প্রথম আলো।
৪। নিন্মমানের পিপিই নিয়ে কথা বলায় নোয়াখালীতে চিকিৎসককে তত্ত্বাবধায়কের শোকজ।
৫। মিডিয়াতে প্রকাশ্যে বিবৃতি দিয়ে (তিনি) আইসিটি অ্যাক্ট এ মামলার হুমকি।”

এখন চিকিৎসকরা নিজ উদ্যোগে এন৯৫ মাস্ক সংগ্রহ করছেন জানিয়ে ডা. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী লিখেন, গত তিনদিনে প্রায় চট্টগ্রামে ১৫০০ মাস্ক সংগ্রহ করা হয়েছে। আর আমি তো শঙ্কায় আছি! আমাকে প্রকাশ্যে হুমকি দিয়েছে দলীয় পদে কেমনে থাকি, কবর খুঁড়ে রাখার জন্যও বলেছেন চামচারা, কখন দলীয় পদ নিয়ে নেয় বা মেরে ফেলে বা হামলা করেন বা করান- তার বিচারের ভার আপনাদের উপর ছেড়ে দিলাম।”

ডাক্তারদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক স¤পাদক ডা. ফয়সাল ইকবাল চৌধুরী লিখেছেন, “আসুন নিজেদের নিরাপত্তা নিজেরাই নিই। এখন আর মাস্ক এর জন্য হা হুতাশ নয়। কোভিড পরবর্তী বাংলাদেশে নতুন কিছু দেখার প্রত্যাশা রইল। নিশ্চয়ই জননেত্রী শেখ হাসিনা অথর্ব, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিবেন। নিজেদেরকে সুস্থ থাকতে হবে নিজের পরিবারের স্বার্থে, জনগণের স্বার্থে, জাতির স্বার্থে। জয় বাংলা। জয় বঙ্গবন্ধু।”