শুভ বিশ্ব ডেস্ক : চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত গোটা বিশ্ব, সেই চীনে এবার হানা দিল নতুন ‘হানটাভাইরাস’। এরই মধ্যে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চীনে একজনের মৃত্যুও হয়েছে।

চীনের গ্লোবাল টাইমস টুইট করে জানায়, মৃত ব্যক্তি চীনের ইউনান প্রদেশের বাসিন্দা। সোমবার (২৩ মার্চ) তিনি বাসে করে যাচ্ছিলেন শ্যানডং প্রদেশে। সেই সময়ই বাসেই মৃত্যু হয় তার। বাসের অন্য ৩২ যাত্রীর নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

হানটাভাইরাস কী?
সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (CDC)-এর মতে, হানটাভাইরাস হল ভাইরাসদের একটি পরিবার মতো। একাধিক ভাইরাসের সমন্বয় সেখানে ঘটেছে। মূলত ইঁদুর থেকে ছড়ায় এই ভাইরাস। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে শরীরে একাধিক জটিল সমস্যার সৃষ্টি হয়। এর ফলে জ্বর, পালমোনারি সিনড্রোম (শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা) দেখা দিতে পারে। মূলত আক্রান্ত ইঁদুরের প্রস্রাব, মুখ, কামড় ও লালার সংস্পর্শে এলে মানুষের মধ্যে তা ছড়িয়ে পড়ে।

লক্ষণ কী কী?
হানটাভাইরাসে আক্রান্ত হলে ক্লান্তি, জ্বর, মাসল পেইন, মাথা যন্ত্রণা, চোখে ঝাপসা দেখা ও পেটের সমস্যা দেখা দেয়। চিকিৎসা না হলে কাশি, শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। যা প্রাণঘাতী হয়ে ওঠে। করোনাভাইরাসে মৃত্যুহার যেখানে আক্রান্তদের দুই-তিন শতাংশের মতো, সেখানে হানটাভাইরাসে মৃত্যুহার ৩৮ শতাংশ।

CDC-র মতে, ইঁদুরের বংশবৃদ্ধি রোধই প্রাথমিক স্ট্র্যাটিজি হওয়া উচিত হানটাভাইরাস প্রতিরোধের জন্য।